Templates by BIGtheme NET
Home / স্বাস্থ্য / সুস্থ থাকতে চাইলে ওজন মাপার স্কেল বাদ দিন এখনই

সুস্থ থাকতে চাইলে ওজন মাপার স্কেল বাদ দিন এখনই

ওজন কমানোর ইচ্ছে যাদের থাকে, প্রতিদিন তারা একটি কাজ করেন। তা হলো ওজন মাপার স্কেলে উঠে নিজের ওজন দেখা। রোজই নিয়ম করে এই কাজটা তারা করে থাকেন, যাতে ওজন বাড়া-কমার ব্যাপারটায় খেয়াল রাখা যায়। ওজন বাড়লেই আঁতকে ওঠেন। আসলে কিন্তু এটা আপনার উপকারের বদলে ক্ষতিও করতে পারে। বেশ কিছু কারণ আছে যা জানতে পারলে আপনার মনে হবে ওজন মাপার স্কেলটা আসলে বাড়িতে না থাকলেই ভালো। কারণ কিছু ক্ষেত্রে এটা অদরকারী, কিছু ক্ষেত্রে এটা ক্ষতিও করতে পারে আপনার। দেখে নিন কারণগুলো কী

১) এটা খুব একটা সঠিক নয়

ওজনের ওঠানামা হতে থাকলে অনেকেই ভীষণ টেনশনে পড়ে যান। আসলে কিন্তু শরীরে পানির পরিমানের ওপরেও অনেকটা ওজন নির্ভর করে আর তাই হঠাৎ ওজন বেড়ে গেলো মানেই খারাপ নয়। আবার ডিহাইড্রেশনের কারণে ওজন কমে গেলে সেটা নিয় খুশি হবার কিছু নেই। শরীরে কী পরিমাণ ফ্যাট আছে সেটা এই স্কেল দেখে বোঝা যায় না। এছাড়াও আপনি সুস্থ আছেন কী নেই, তা শুধু ওজন দেখে বলে দেওয়া যায় না। এ কারণে স্বাস্থ্য ভালো থাকার পরিমাপক হিসেবে এই স্কেল তেমন কার্যকর নয়।

২) ওজনের ওপরে আসলে আপনার খুব বেশি নিয়ন্ত্রণ নেই

নিয়ন্ত্রণ নেই বলে এটা নিয়ে এতো বেশি মাথা ঘামানোর কিছু নেই, প্রতিদিন ওজন মাপারও যৌক্তিকতা নেই। আপনি হয়তো নতুন কোনো ব্যায়াম শুরু করে অথবা নতুন এক ধরণের ডায়েট করে দ্রুত কিছু ওজন কমিয়ে ফেললেন। কিন্তু আপনি দীর্ঘ সময় ধরে ডায়েট করতে পারবেন না, করা উচিতও না কারণ তা স্বাস্থ্যকর নয়। আর ব্যায়ামটাও সবসময় ধরে রাখা যায় না। আর ওজনের ওপরে জিনগত একটা প্রভাব তো থাকেই। ফলে একটা সময় আপনার ওজন আবার আগের মতো হয়ে যাবে। আপনি যদি স্বাস্থ্যকর একটা খাদ্যভ্যাস এবং জীবনচর্চা বজায় রাখতে পারেন, সেটাই আপনার সুস্থ রাখবে। ওজন কমে যাওয়া মানেই আকর্ষণীয় হয়ে ওঠা নয়।  .

৩) এটা আপনার আবেগ-অনুভুতিকে নিয়ন্ত্রণ করছে আপনার অজান্তেই

ওজন মাপার স্কেলে উঠে দেখলেন, গত কিছুদিনের শত চেষ্টা সত্ত্বেও ওজন কমেনি, বরং বেড়ে গেছে। কী হবে এতে। রাগ, ক্ষোভ, দুঃখ, অতৃপ্তি, হতাশায় ছেয়ে যাবে আপনার মন, তাই নয় কী? কিন্তু ভাবুন তো, একটা যন্ত্রের কারণে নিজের ওপরে এতো রাগ হওয়াটা কি ঠিক? শুধু তাই নয়, কেউ কেউ হতাশ হয়ে স্ট্রেস ইটিং শুরু করেন। এতে স্বাস্থ্যের আরও বারোটা বেজে যায়।

আপনার ওজন যতই হোক না কেন, মানুষ হিসেবে আপনার মূল্য একটা ওজন মাপার স্কেল দিয়ে মাপা যাবে না মোটেই। WebMD  এর মতে ওজন মাপার স্কেলের চাইতে টেপ মেজার (মাপার ফিতা) এবং BMI বেশি কার্যকরী। এ কারণে ওজন মাপার এই স্কেল ব্যবহার করা বাদ দিয়ে দিতে পারেন। অথবা প্রতিদিন এটাকে ব্যবহার না করে বরং মাঝে মাঝে মেপে নিতে পারেন নিজের ওজন। এতে আপনারই উপকার হবে।

About admin

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful