Templates by BIGtheme NET
Home / খেলাধুলা / সাঙ্গাকারার মন্ত্রে উজ্জীবিত সাদমান

সাঙ্গাকারার মন্ত্রে উজ্জীবিত সাদমান

সংবাদ সম্মেলন কক্ষে ঢুকে ঠিক ঠাওর করতে পারছিলেন না, কোথায় বসতে হবে! কারণও আছে। এই প্রথম যে এলেন সাদমান ইসলাম। কাল অনেক প্রথমের অভিজ্ঞতা হলো বাঁহাতি ওপেনারের।

প্রথম টি-টোয়েন্টি খেলতে নামলেন। নেমেই আলো ছড়ালেন। রাতের ম্যাচে ব্যাটসম্যানদের জন্য ‘কাঁটা বিছানো’ উইকেটে দল জেতানো ৪৫ রানের ইনিংস খেলে হলেন ম্যাচসেরা। সাবলীল ব্যাটিংয়ে মুগ্ধ করলেন ঢাকা ডায়নামাইটসের ওপেনার। প্রথম টি-টোয়েন্টি, তার ওপর আবার রাতের উইকেট-স্নায়ুচাপে ভোগাটাই স্বাভাবিক। কিন্তু দলের অধিনায়ক কুমার সাঙ্গাকারা সাদমানের কানে পড়ে দিয়েছিলেন অন্য মন্ত্র, ‘‘ব্যাটিংয়ে যাওয়ার আগে সাঙ্গাকারা বলছিল, আত্মবিশ্বাস নিয়ে ব্যাটিং করবে, ভয় পেও না। প্রথম ম্যাচ, ‘ব্রিদ ইন ব্রিদ আউট’-বারবার এটা করতে করতে যাও। হয়তো ভালো করবে। অপর প্রান্তে সৈকত আলী ভালো শুরু করাতে আমার চাপটাও কম গেছে।’

কাল চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষের ইনিংস দিয়ে অবশ্য ওপেনার সাদমানকে পুরোপুরি চেনা যাবে না। তাঁকে চিনতে ফিরে যেতে হবে গত বছর যুব বিশ্বকাপে। ২০১৪ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রান এসেছিল সাদমানের ব্যাট থেকেই। ৬ ম্যাচে ১০১.৫০ গড়ে করেছিলেন ৪০৬। এর পর নিয়মিত খেলেছেন ঘরোয়া ক্রিকেটে। সর্বশেষ, ‘এ’ দলের হয়ে গেছেন দক্ষিণ আফ্রিকা ও জিম্বাবুয়ে সফরেও। ১৪টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচে ৪৮.১৬ গড়ে ১১৫৬ রান জানান দিচ্ছে বড় দৈর্ঘ্যের ক্রিকেটে তাঁর বিপুল সম্ভাবনা। বিসিবি একাডেমির সাবেক কোচ রিচার্ড ম্যাকিন্স সাদমান-প্রসঙ্গে একবার বলেছিলেন, ‘টেস্টে ওপেনার হিসেবে তামিমের সঙ্গী হওয়ার যোগ্যতা আছে ওর’।

অনূর্ধ্ব-১৯ দলের সতীর্থ মুস্তাফিজুর রহমান তো আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এসেই হইচই ফেলে দিয়েছেন। সাদমান বাংলাদেশ দলের হয়ে আলো ছড়াবেন কবে-প্রাসঙ্গিকভাবে প্রশ্নটা এসেই যাচ্ছে। অবশ্য এও ঠিক, তাঁকে হাঁটতে আরও অনেকখানি পথ। সাদমান চেষ্টা করে যাচ্ছেন সে পথটা দ্রুত পাড়ি দিতে, ‘চেষ্টা করে যাচ্ছি। ঘরোয়া ক্রিকেট ও ‘এ’ দলে ভালো খেলেছি। চেষ্টা করব এ ধারাবাহিকতা ধরে রেখে জাতীয় দলে আসতে। এখানে অনেক সিনিয়র খেলোয়াড় আছেন। তাঁদের কাছ থেকে শিখছি-জানছি, কীভাবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলতে হয়। আত্মবিশ্বাস কীভাবে বাড়াতে হয়, চাপ কীভাবে সামলাতে হয়।’

সাদমানের প্রিয় দুই ব্যাটসম্যান সাঙ্গাকারা ও তামিম ইকবাল। কী দারুণ মিল, কাল খেললেন ‘সাঙ্গা’র অধিনায়কত্বে। আর ব্যাটিংয়ে হারালেন তামিমকে! সাদমানের মুখে হাসিটা স্বাভাবিকভাবেই চওড়া। ঢাকার ওপেনার নিশ্চয় চাইবেন সামনেও এ হাসিটা ধরে রাখতে।

About admin

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful