Templates by BIGtheme NET
Home / সারাদেশ / লালমনিরহাট সীমান্ত এখন শান্ত, ঘরে ফিরছে গ্রামবাসী

লালমনিরহাট সীমান্ত এখন শান্ত, ঘরে ফিরছে গ্রামবাসী

লালমনিরহাটের আদিতমারীর দুর্গাপুর সীমান্ত এখন শান্ত হয়ে এসেছে। রোববার সকাল থেকে বিএসএফ সদস্য কমানোয় সীমান্তে উত্তেজনা কমেছে। এতে ভয় কাটিয়ে ঘরে ফিরতে শুরু করেছে এলাকাবাসী।
এর আগে শনিবার রাতে হঠাৎ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতীয় সীমান্ত রক্ষীবাহিনী বিএসএফের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। এসময় বিএসএফের গুলিতে এক বাংলাদেশী নিহত হয়। বিএসএফ এ সময় শক্তি বৃদ্ধি করে বাংলাদেশ সীমান্তের দিকে সার্চলাইট মারা শুরু করে। এ সময় তারা বাংলাদেশে প্রবেশেরও চেষ্টা করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে এলাকাবাসী আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। রাতেই ওই সীমান্ত সংলগ্ন বানিয়াটারী, নামাটারী ও চওড়াটারী এলাকার নারী ও শিশুরা ভয়ে নিরাপদ স্থানে পালিয়ে যেতে শুরু করে।

খবর পেয়ে স্থানীয় চওড়াটারী বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা অবস্থান নেয়। তাদের সঙ্গে স্থানীয়রাও যোগ দেয়। উভয় পক্ষে উত্তেজনা দেখা দেয়ায় এলাকাবাসী নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধানে ছুটতে থাকে। দুর্গাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সালেকুজ্জামান প্রামাণিক বলেন, আজও তারা বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশের চেষ্টা চালায়। এতে গ্রামবাসী ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়ে।

স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য মোস্তাকিম জানান, হঠাৎ করে আন্তর্জাতিক সীমানা পিলার ৯২৩, ৯২৪, ৯২৫ ও ৯২৬ বরাবর বাতারবাড়ী বিএসএফ ক্যাম্পের সদস্যরা শক্তি বৃদ্ধি করে। এতে সীমান্তে উত্তেজনা দেখা দেয়। পরে শনিবার রাত থেকে ভারতীয় বিএসএফ সদস্যের সংখ্যা কমে যাওয়ায় উত্তেজনা কিছুটা প্রশমিত হয়ে আসে।

লালমনিরহাট ১৫ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল বজলুর রহমান হায়াতী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সীমান্ত নিরাপদ রাখতে বিজিবি সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। রোববার সকাল থেকে এলাকাবাসীর আতঙ্ক কিছুটা কমেছে। তারা ঘরে ফিরতে শুরু করেছে।

About admin

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful