Templates by BIGtheme NET
Home / জাতীয় / রোববার থেকে পশুর হাটে ভ্রাম্যমাণ আদালত

রোববার থেকে পশুর হাটে ভ্রাম্যমাণ আদালত

ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন পশুর হাট ও আশপাশের এলাকায় কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান শুরু হবে রোববার।

হাটের পরিবেশ ও ব্যবস্থাপনা দেখার পাশাপাশি আইন-শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা পরিস্থিতিও দেখবেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা।

ঢাকা মহানগর পুলিশের উপ কমিশনার (গণমাধ্যম) মুনতাসিরুল ইসলাম বলেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন, দক্ষিণ সিটি করপোরেশন ও জেলা প্রশাসকের নির্ধারিত ২৩টি পশুর হাটে শনিবার ভোর থেকে পশু ওঠানোর কথা। পরদিন থেকে সাতজন ম্যাজিস্ট্রেট এসব হাটে দায়িত্ব পালন করবেন।

গাবতলী পশুর হাট এবং রায়ের বাজার কবরস্থান সংলগ্ন পশ্চিমাঞ্চল পুলিশ লাইনের জন্য নির্ধারিত খালি জমিতে দুটি হাটে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করবেন মিরপুর সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মুশফিকুর রহমান।

তিনি বলেন, “ইজারাদাররা যেসব শর্তে ইজারা নিয়েছেন, সেগুলো সঠিকভাবে পালন করছেন কিনা তা ভ্রাম্যমাণ আদালত দেখবে। তাছাড়া সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতিও দেখবেন তারা।”

মুশফিকুর রহমান আরো বলেন, কোরবানির সময় কোনো ব্যবসায়ী পশুকে ক্ষতিকর কিছু খাইয়ে মোটাতাজা করেছেন কিনা সেটি পরীক্ষা করে দেখার নির্দেশনা এখনও আসেনি। নির্দেশনা পেলে অবশ্যই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পুলিশ কর্মকর্তা মুনতাসিরুল ইসলাম বলেন, পশুর হাট ঘিরে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা যেন না হয়, সেজন্য পুলিশ প্রস্তুত রয়েছে।

প্রত্যেকটি হাটে থাকবে সিসিটিভি ক্যামেরা, জাল টাকা চিহ্নিত করার যন্ত্র ও ওয়াচ টাওয়ার। তাছাড়া ক্রেতা-বিক্রেতাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশ সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় থাকবে।নির্ধারিত সীমানার বাইরে কেউ হাট বসিয়েছেন কিনা তাও দেখা হবে বলে জানান তিনি।

পূর্বাচলমুখী ৩০০ ফুট প্রশস্ত সড়কের পাশে বাংলাদেশ পুলিশের হাউজিংয়ের জমি সংলগ্ন খালি জমি, উত্তরা ১৫ এবং ১৬ নম্বর সেক্টরের মধ্যবর্তী সেতু সংলগ্ন খালি জমি, খিলক্ষেত বনরূপা আবাসিক প্রকল্পের খালি জায়গা, মিরপুর সেকশন-০৬, ওয়ার্ড ০৬, ইস্টার্ন হাউজিংয়ের খালি জমি, মিরপুর সেকশন-১১, ওয়ার্ড ০৫, বাওনিয়া বাঁধ সংলগ্ন খালি জমি, গাবতলী পশুর হাট (স্থায়ী), রায়েরবাজার কবরস্থান সংলগ্ন পশ্চিমাঞ্চল পুলিশ লাইনের জন্য নির্ধারিত খালি জমিতে এবার হাট বসবে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এলাকার দশটি হাট বসবে এবার।

সাদেক হোসেন খোকা মাঠ, ধূপখোলার ইস্ট এন্ড ক্লাব মাঠ, উত্তর শাহজাহানপুর খিঁলগাও রেলগেট বাজার সংলগ্ন মৈত্রী সংঘের মাঠ, কমলাপুর সংলগ্ন গোপীবাগের ব্রাদার্স ইউনিয়ন সংলগ্ন বালুর মাঠ, পোস্তগোলা শ্মশানঘাট সংলগ্ন খালি জায়গা, খিঁলগাওয়ের মেরাদিয়া বাজার, ঝিগাতলা হাজারীবাগ মাঠ, লালবাগের রহমতগঞ্জ খেলার মাঠ, লালবাগের মরহুম হাজী দেলোয়ার হোসেন খেলার মাঠ, বেড়ি বাঁধ ও তার আশেপাশের খালি জায়গা, কামরাঙ্গীরচর ইসলাম চেয়ারম্যানের বাড়ির মোড় থেকে দক্ষিণে বুড়িগঙ্গা নদীর বাঁধ সংলগ্ন খালি জায়গায় বসবে এসব হাট।

ঢাকা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের অনুমোদিত ছয়টি হাট হল- কদমতলীর শ্যামপুর বালুর মাঠ, মুক্তি সরণী রোড-আদর্শ নগর রোড-গোয়াল বাড়ী মোড়-বর্ণমালা স্কুল সংলগ্ন ফাঁকা জায়গা, আশকোনা আশিয়ান সিটি হাউজিং এস্টেটের ফাঁকা জায়গা, নতুন বাজার বালু নদীর ১০০ ফুট চওড়া রাস্তার চার নম্বর ব্রিজ থেকে বালু নদী পর্যন্ত উভয় পাশের ফাঁকা জায়গা, সারুলিয়া স্থায়ী পশুর হাট এবং বাড্ডার মেরাদিয়ার ইন্দুলিয়া-দাউদকান্দি-বাঘাপুর।

মুনতাসিরুল ইসলাম জানান, ঈদে বিশৃঙ্খলা এড়াতে পুলিশ বিভিন্ন ধরনের সচেতনামূলক কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। বিভিন্ন হাট ও টার্মিনালগুলোতে পুলিশ জনগণকে সচেতন করতে প্রচারপত্রও বিলি করবে।

 

About admin

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful