Templates by BIGtheme NET
Home / বিনোদন / যে কারণে থাকবে মনে…

যে কারণে থাকবে মনে…

২০১৫ সালের শেষ দিন আজ। দিন পেরোলেই সাঙ্গ হবে বছরটি। কিন্তু তাতেই কি শেষ হয়ে যাবে এ বছরের প্রাপ্তিগুলো? একটুও মনে পড়বে না চলে যাওয়া এ বছরটার কথা? কিছু তারকার জন্য কিন্তু ২০১৫ খুব সহজে ভোলার নয়। কেন? তা জেনে নেওয়া যাক তাঁদেরই কয়েকজনের মুখ থেকে

জেমস

বছরের শুরু থেকে গান নিয়েই আছি। এবার বাংলাদেশের ছয়টি ছবিতে গান গেয়েছি। এমনটা আগে হয়নি। দেশে আর দেশের বাইরে অনেক কনসার্ট করেছি। দেশের বাইরের ট্যুরগুলো খুব উল্লেখযোগ্য ছিল। এই যেমন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, ডেনমার্ক, ভারত আর ফ্রান্সে গান করেছি।

আফরান নিশো, মৌটুসি বিশ্বাস, পূজা সেনগুপ্তন্যান্সি
ময়মনসিংহ শহরে নদীর ধারে একটা বাড়ি তৈরির স্বপ্ন ছিল বহুদিনের। এ বছরই সেই স্বপ্ন পূরণ হওয়ার পথে। বাড়ির কাজ প্রায় শেষ। এ ছাড়া বিগত বেশ কিছুদিন আমার জীবনে অনেক ঝড়ঝাপটা গেছে। ২০১৫ সালে এসে তা কাটিয়ে উঠেছি। ২০১৫ সালে করা দুটি গানের কথা না বললেই নয়। আসিফ ইকবালের কথায় ‘আমি ছুঁয়ে দিলে’ গানটি প্রথম নকীব খানের সংগীতে গেয়েছি। আর অনেক দিন পর হাবিব ভাইয়ের সঙ্গে সুইটহার্ট ছবির জন্য গেয়েছি ‘ভালোভাবে ভালোবাসাই হলো না’ গানটি। প্রতিবছর এলাকায় কিছু সামাজিক কাজ করি। এ বছরটাতে তাঁদের প্রত্যাশা বেশি ছিল। আমার সাধ্যমতো চেষ্টা করেছি। সব মিলিয়ে ২০১৫ সালটি অনেক ইতিবাচক কারণেই আমার মনে থাকবে।
আরিফিন শুভ
আমার চলার পথে নতুন একজন সঙ্গী পেয়েছি এ বছর। বিয়ে করেছি—এটাই ছিল ২০১৫ সালে ঘটে যাওয়া আমার জীবনের সবচেয়ে স্মরণীয় ঘটনা। কাজের কথা বলতে গেলে, এ বছরটা আমার জন্য ছিল সৌভাগ্যে ঘেরা। চলচ্চিত্রের কাজের চাপ সবচেয়ে বেশি ছিল এ বছর। নিয়তি, অস্তিত্ব-এর মতো বিশেষ দুটি ছবির কাজ শেষ করতে পেরেছি। এখন আবার থ্রিলার ছবি ঢাকা অ্যাটাক-এ কাজ শুরু করলাম। সব মিলিয়ে ২০১৫ সালে মনে রাখার মতো অনেক উপলক্ষই আছে আমার।
নুসরাত ফারিয়া
দীর্ঘ সময় ধরে মডেলিং আর উপস্থাপনা নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম। ২০১৫ সালে সেই ব্যস্ততা থেকে ছুটি নিয়েছি। এ বছরই প্রথমবারের মতো কাজ করেছি চলচ্চিত্রে। সেই সঙ্গে এ বছরই আশিকীর মধ্য দিয়ে নিজেকে বড় পর্দায় দেখার সৌভাগ্য হয়েছে আমার। সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে বলিউডে কাজ করারও। এই সব কটি বিষয়ই আমার জন্য দারুণ রোমাঞ্চকর ছিল। এখন তো ভারতের তামিল ভাষার ছবিতে অভিনয়ের জন্যও প্রস্তাব পাচ্ছি। তাই প্রতি মুহূর্তেই এখন মনে হচ্ছে, ২০১৫ সালটি জীবনে না এলে কী হতো আমার! এ বছরটিকে কোনো দিনই ভোলা যাবে না।
নুসরাত ফারিয়ামৌটুসি বিশ্বাস
২০১৫ সাল আমার জন্য দারুণ একটা বছর। এই বছরই আমি সন্তান ও সংসার সামলে পুরোপুরি অভিনয়ে ফিরতে পেরেছি। ভালো কিছু নাটকে অভিনয়ের পাশাপাশি ইউটার্ন নামে একটি বাণিজ্যিক ছবিতেও অভিনয় করেছি। তবে খারাপ লেগেছে শিশু রাজন হত্যার ব্যাপারটি। অনেক দিন তা আমার মন খারাপের কারণ হয়ে থাকবে। কারণ, আমিও তো মা!
পূজা সেনগুপ্ত
এ বছর অনেক বাধা উপেক্ষা করে আমার দল তুরঙ্গমী রেপার্টরি ড্যান্স থিয়েটার থেকে ওয়াটারনেস মঞ্চে এনেছি। তা-ও কয়েকবার। মঞ্চস্থ হওয়ার পর অনেকেই ইতিবাচক মন্তব্য করেছেন। টেলিভিশন চ্যানেলেও প্রচারিত হয়েছে এটি। আমার জন্য এসব অনেক আনন্দের ব্যাপার। আর এ বছর বেশ কয়েকজন যুদ্ধাপরাধীর শাস্তি হয়েছে। এর জন্য আমাদের প্রজন্মের অবদান আছে। আর এই প্রজন্মের একজন প্রতিনিধি হিসেবে আমি আনন্দিত।
আফরান নিশো
২০১৫ সাল আমাকে অনেকগুলো চরিত্র দিয়েছে। নানা ধরনের চরিত্রে অভিনয় করে বেশ সাড়া পেয়েছি। বিশেষ করে গুলবাহার টেলিছবির মাঝির চরিত্র, মেট্রোপলিটন প্রেম নাটকের তিনটি চরিত্র এবং পাপারাজ্জি টেলিছবির পুরোনো আমলের ফটোগ্রাফারের চরিত্র। এ ছাড়া এ বছর আমার প্রথম সন্তানের প্রথম জন্মদিন পালন করতে পেরেছি। আমার কাছে মনে রাখার মতো একিট ঘটনা এটা।

About admin

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful