Templates by BIGtheme NET
Home / জাতীয় / বেতন বৈষম্য দূর করতে মন্ত্রিসভা কমিটি পুনর্গঠন

বেতন বৈষম্য দূর করতে মন্ত্রিসভা কমিটি পুনর্গঠন

জাতীয় বেতন স্কেল বাস্তবায়নের লক্ষ্যে অনিষ্পন্ন বিষয়গুলো পর্যালোচনায় বেতন বৈষম্য দূর করা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি পুনর্গঠন করেছে সরকার।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (কমিটি ও অর্থনৈতিক) মো. মোস্তাফিজুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপন থেকে বুধবার এ তথ্য জানা গেছে।

এ কমিটিতে অর্থমন্ত্রীকে আহ্বায়ক করে শিল্পমন্ত্রী, বাণিজ্যমন্ত্রী, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী/প্রতিমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী, আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়কমন্ত্রী এবং অর্থ ও পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীকে সদস্য করা হয়েছে।

গত ৭ সেপ্টেম্বর মন্ত্রিসভায় পে-স্কেল অনুমোদনের পর পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক এবং বিভিন্ন পক্ষ আন্দোলন করে। এরপর মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ বৈষম্য দূর করা সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি পুনর্গঠন করে।

বুধবার এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি হয়েছে। এ কমিটি জাতীয় বেতন স্কেল বাস্তবায়নের লক্ষ্যে অনিষ্পন্ন বিষয়গুলো পর্যালোচনা, বেতন স্কেলে বৈষম্যের বিষয়ে প্রাপ্ত অভিযোগগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে নিষ্পত্তির লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় সুপারিশ ও এ সংক্রান্ত অন্যান্য বিষয় পর্যালোচনা করে সুপারিশ করবে।

কমিটিকে সহায়তা করবেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব/সচিব, অর্থ বিভাগের সিনিয়র সচিব, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়/বিভাগের সিনিয়র সচিব/সচিব ভারপ্রাপ্ত সচিবেরা। অর্থ বিভাগ কমিটিকে সাচিবিক সহায়তা দেবে।

কমিটির বৈঠক প্রয়োজন অনুসারে অনুষ্ঠিত হবে বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়।

প্রজ্ঞাপনে বেতন বৈষম্য দূর করতে ২০১৪ সালের ৪ এপ্রিল গঠিত কমিটি বাতিল করার নির্দেশনার কথাও উল্লেখ করা হয়েছে।

এদিকে, সপ্তম বেতন কাঠামোতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সিলেকশন গ্রেড প্রাপ্ত অধ্যাপকরা সচিবের সমান গ্রেড-১ স্কেলে বেতন পেতেন। জ্যেষ্ঠ অধ্যাপকরা গ্রেড-২ এবং অধ্যাপকরা গ্রেড-৩ এ স্কেলে বেতন পেতেন।

অষ্টম বেতন কাঠামোতে `সিলেকশন গ্রেড প্রাপ্ত অধ্যাপক’ পদটি বিলুপ্ত করে সিলেকশন গ্রেড প্রাপ্ত অধ্যাপক ও জ্যেষ্ঠ অধ্যাপকদের সচিবদের সমান গ্রেড-১ দেওয়ার প্রস্তাব করা হয়।

অন্যদিকে, জ্যেষ্ঠ সচিবদের জন্য নতুন একটি বিশেষ গ্রেড তৈরি করে সরকার।

এর প্রতিক্রিয়ায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা বলছেন, আমলারা নিজেদের জন্য বিশেষ গ্রেড তৈরি করলেও শিক্ষকদের সিলেকশন গ্রেড প্রাপ্ত অধ্যাপক পদটি বিলুপ্ত করেছেন। ফলে আমলাদের নিচের স্কেলে বেতন পাবেন অধ্যাপকরা।

এ নিয়ে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। এছাড়া, টাইম স্কেল নিয়েও রয়েছে ক্ষোভ ও অসন্তুষ্টি।

About admin

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful