Templates by BIGtheme NET
Home / রাজনীতি / বিএনপির মেয়র প্রার্থীর বৈঠকে বোমা-গুলি

বিএনপির মেয়র প্রার্থীর বৈঠকে বোমা-গুলি

নোয়াখালীর চৌমুহনী পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপিদলীয় মেয়র প্রার্থী জহির উদ্দিন হারুনের উঠান বৈঠকে সন্ত্রাসীরা গুলি ও বোমা হামলা করেছে। এতে একজন গুলিবিদ্ধ ও বোমার আঘাতে দুজন আহত হন। আহতদের চৌমুহনী শহরের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা দেওয়া হয়েছে। এই হামলার জন্য বিএনপির প্রার্থী সরকারদলীয় ক্যাডারদের দায়ী করেছেন।

জানা যায়, গতকাল শনিবার বিকেলে ৯ নম্বর ওয়ার্ডের হাজীপুর এলাকার নবদিগন্ত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে উঠান বৈঠক চলাকালে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

জহির উদ্দিন হারুন বলেন, বৈঠক চলাকালীন সরকারদলীয় সমর্থক ডালিম ও মাহফুজের নেতৃত্বে মুখোশ পরা সশস্ত্র একদল সন্ত্রাসী হামলা চালায়। এ সময় তার নেতাকর্মী, সমর্থক ও তাকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ও ককটেল বোমা হামলা চালানো হয়। এতে তার সমর্থক শাওন নামের এক যুবক (২৬) হাতে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। অপর দুজন খোকন ও অজ্ঞাত এক যুবক বোমা হামলার আঘাতে আহত হয়েছেন।

আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাসেবা দেওয়া হয়েছে। মেয়র প্রার্থী জহির উদ্দিন হারুনের দাবি, তাকে হত্যা ও আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে তার অংশগ্রহণ বানচাল করার উদ্দেশ্যেই সরকারদলীয় সন্ত্রাসীরা এ হামলা চালিয়েছে। গুলি ও বোমা হামলার সময় বিকট শব্দে উঠান বৈঠকে উপস্থিত লোকজন প্রাণভয়ে দিগ্বিদিক ছোটাছুটি করতে থাকে।

বেগমগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ব্যাপারে চৌমুহনী পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর ছিদ্দিক টিপুর সঙ্গে কথা বললে তিনি তার দলীয় লোকজন কর্তৃক হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

বেগমগঞ্জ থানার ওসি গোলাম ফারুক বলেন, বিএনপির অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরেই এই হামলার ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি পুলিশ খতিয়ে দেখছে।

চৌমুহনী পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ মনির হোসেন ও বেগমগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার একেএম রেজাউর রহমানের সঙ্গে কথা বললে তারা বলেন, বিষয়টি তারা জেনেছেন। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

About admin

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful