Templates by BIGtheme NET
Home / জীবনযাপন / পূজার সাজপোশাক

পূজার সাজপোশাক

ছেলেদের পূজার সাজপোশাক মানে পাঞ্জাবিতে শরীর গলানো, এই ধারণা আজ আর নেই। পাঞ্জাবির সঙ্গে পায়জামা নাকি ধুতি? চুলের ছাঁটই বা কেমন হবে? সবকিছু জানা চাই। সাজপোশাকের সবটা হতে হবে পরিপাটি আর ট্রেন্ডি। ষষ্ঠী থেকে দশমী, কেমন হবে পূজার দিনগুলোতে ছেলেদের সাজপোশাক। বাজার ঘুরে আর ডিজাইনারদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেল ছেলেদের এবারের ফ্যাশন ধারা। ফ্যাশন হাউস রঙের ডিজাইনার বিপ্লব সাহা বলেন, ‘পূজার পাঁচ দিন ছেলেরা পাঁচ রকমের স্টাইল করতে পারে। সকাল আর রাতের সাজটা আলাদা হলেই ভালো দেখাবে। লাল, কমলা, বাদামি আর গেরুয়া—এই রংগুলোই এবার পূজায় ছেলেদের পোশাকে বেশি দেখা যাবে। পাঞ্জাবির সঙ্গে একেক দিন পায়জামা, ধুতি বা প্যান্ট বদলে নিলে ভালো দেখাবে।’
এবার পূজার সময়টা যেহেতু বিদায়ী গরম আর হালকা শীতের সন্ধিক্ষণ, তাই পোশাক হওয়া চাই আরামের। বাজার ঘুরে দেখা গেল, পাঞ্জাবির গলায় ব্যান্ড কলার, শার্টের কলার ছাড়াও আছে সাদামাটা কাট। তরুণদের জন্য পকেটসহ পাঞ্জাবিতে কাঁধের ওপর জুড়ে দেওয়া হয়েছে বেল্ট। কোনো কোনো পাঞ্জাবির কনুই ও কাঁধে কাজ করা হয়েছে। সুতার কাজ ছাড়াও ভিন্ন কাপড়ের প্যাচওয়ার্ক নকশা এবার বেশি দেখা যাচ্ছে।
.রাতের সিল্কের পাঞ্জাবি ভালো দেখাবে। এক রঙের সাদামাটা পাঞ্জাবি পরেও বাজিমাত করতে পারেন ওপরে একটা প্রিন্স কোট পরে। সুতির একরঙা ও প্রিন্ট তো আছেই, এ ছাড়া মখমলের তৈরি প্রিন্স কোট এবার চলবে বেশ। ফ্যাশন হাউস অঞ্জনসের পরিচালক শাহিন আহমেদ জানালেন, স্লিম ফিট পাঞ্জাবিই বেশি ট্রেন্ডি এই সময়ে।
পায়জামা বা ধুতির পাড়েও নকশা দেখা যাচ্ছে। পাঞ্জাবির সঙ্গে এক দিন ধুতি তো আরেক দিন পায়জামা বা প্যান্ট পরতে পারেন। পায়ে মোকাসিন, দুই ফিতার স্যান্ডেল ছাড়াও স্টাইলিশ চটি পরতে পারেন।
হেয়ারোবিক্সের স্বত্বাধিকারী ও রূপ পরামর্শক শাদীন মাহবুব বলেন, ‘আগে থেকেই ম্যানিকিওর-প্যাডিকিওর করে রাখা ভালো। পূজার আগে একটা ফেসিয়াল করে নিলে চেহারায় সতেজতা থাকবে। পূজার দিনগুলোতে নানাভাবেই চুলের স্টাইল করতে পারেন। বাজ কাট, ক্রু কাট, মোহাক বা মেসিলুক দিতে পারেন চুলে।’
.ইচ্ছেমতো চুল সাজাতে মাঝারি আকারের চুলের ছাঁট ভালো। যেখানে পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে কখনো অল্প জেল দিয়ে চুলটা ভেজা ভেজা রাখা যাবে। আবার চাইলেই পুরো চুলটা হাত দিয়ে এলোমেলো করে একটা বোহেমিয়ান লুক আনতে পারবেন। একবেলা পাঞ্জাবির রঙে মিলিয়ে চুলে ওয়ান টাইম হাইলাইটস করাতে পারেন। রাতের অনুষ্ঠানে সিল্কের পাঞ্জাবির সঙ্গে মাঝারি চুলটা ব্যাক ব্রাশ করলেও মন্দ লাগবে না।

দরদাম
সাধারণ নকশার সুতির পাঞ্জাবি কিনতে পারবেন ৭০০ থেকে ১৫০০ টাকার মধ্যে। এ ছাড়া পূজার জন্য তৈরি বিশেষ পাঞ্জাবির দাম পড়বে ১৫০০ থেকে ৩০০০ টাকা। সিল্কের পাঞ্জাবি হলে দাম শুরু হবে ২০০০ টাকা থেকে। সাধারণ আলিগড়ি ও চুড়িদার পায়জামা কেনা যাবে ৩০০ থেকে ১০০০ টাকায়। ধুতির দাম পড়বে ৫০০ থেকে ২০০০ টাকা। জিনসের প্যান্ট কিনতে পারবেন ৭০০ থেকে ২৫০০ টাকায়।

কমলা, গেরুয়া ইত্যাদি উজ্জ্বল রং দেখা যাবে পাঞ্জাবিতেযেখানে পাবেন
দেশী দশের সব দোকান ছাড়াও আড়ং, যাত্রা, ওটু, ক্যাটস আই, ইয়েলো, লুবনান, আর্টিস্টি, স্মার্টেক্স, ব্যাং, রিলিউস, ফ্রিল্যান্ড, সেইলর, লা রিভ, সিলভার রেইন ইত্যাদি ফ্যাশন হাউস তো আছেই। এ ছাড়া কিনতে পারেন ঢাকার নিউমার্কেট, নুরজাহান শপিং কমপ্লেক্স, বদরুদ্দোজা মার্কেট, এলিফ্যান্ট রোড, বসুন্ধরা সিটি শপিং মল, যমুনা ফিউচার পার্ক, পীর ইয়ামেনি মার্কেট, গুলশানের বিভিন্ন মার্কেট, বনানীর ১১ নম্বর সড়কের বিভিন্ন শোরুম, গুলিস্তান, মিরপুর, উত্তরার বিভিন্ন মার্কেটে।

About admin

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful