Templates by BIGtheme NET
Home / শিক্ষা / নোবিপ্রবি’তে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

নোবিপ্রবি’তে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীর ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। ভর্তি কার্যক্রম চলবে ১১-১৪ ও ১৭ জানুয়ারী ২০১৬ পর্যন্ত।

রোববার সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. আবুল হোসেন ভর্তি কমিটির সচিব ও রেজিস্ট্রার প্রফেসর মো. মমিনুল হকের নিকট ফলাফল হস্তান্তর করেন। বিস্তারিত ফলাফল বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাচ্ছে। বিষয় নির্বাচন ও ভর্তি কার্যক্রম নিম্নোক্ত সময়সূচী অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে:

১১ জানুয়ারী ২০১৬ সকাল ৯.০০টা থেকে ‘এ’ গ্রুপের মেধাতালিকার ১ – ২৫০ পর্যন্ত।

১২ জানুয়ারী ২০১৬ সকাল ৯.০০টা থেকে ‘এ’ গ্রুপের মেধাতালিকার ২৫১ – ৫০০ পর্যন্ত ও মুক্তিযোদ্ধা কোটার মেধাতালিকার ১-২০ পর্যন্ত এবং উপজাতি কোটার মেধাতালিকার ১-১০ পর্যন্ত।

১৩ জানুয়ারী ২০১৬ সকাল ৯.০০টা থেকে ‘বি’ গ্রুপের মেধাতালিকার ১ – ৪০০ পর্যন্ত।

১৪ জানুয়ারী ২০১৬ সকাল ৯.০০টা থেকে ‘বি’ গ্রুপের মেধাতালিকার ৪০১ – ৮০০ পর্যন্ত ও মুক্তিযোদ্ধা কোটার মেধাতালিকার ১-৩৫ পর্যন্ত এবং উপজাতি কোটার মেধাতালিকার ১-১৫ পর্যন্ত।

১৭ জানুয়ারী ২০১৬ সকাল ৯.০০টা থেকে ‘সি’ গ্রুপের মেধাতালিকার ১ – ৯০ পর্যন্ত ও মুক্তিযোদ্ধা কোটার মেধাতালিকার ১-৮ এবং উপজাতি কোটার  মেধাতালিকার ১-৩ পর্যন্ত।

১৭ জানুয়ারী ২০১৬ সকাল ৯.০০টা থেকে ‘ডি’ গ্রুপের মেধাতালিকার ১ -৯০ (বিজ্ঞান), ১-৬৫ (বাণিজ্য) এবং ১-৩৫ (মানবিক) পর্যন্ত ও  মুক্তিযোদ্ধা কোটার বিজ্ঞান গ্রুপের মেধাতালিকার ১-৫ পর্যন্ত, বাণিজ্য গ্রুপের ১-৭ পর্যন্ত এবং মানবিক গ্রুপের ১-৫ পর্যন্ত। উপজাতি কোটার বিজ্ঞান গ্রুপের মেধাতালিকার ১-৩ পর্যন্ত, বাণিজ্য গ্রুপের ১-৩ পর্যন্ত এবং মানবিক গ্রুপের ১-৩ পর্যন্ত।

ভর্তির অনুমতি প্রাপ্ত প্রার্থীদেরকে ১১-১৪ ও ১৭-১৯ জানুয়ারী ২০১৬ তারিখের মধ্যে অবশ্যই ভর্তি হতে হবে। উল্লেখ্য, ‘এ’ গ্রুপে ২২৪ জন, ‘বি’ গ্রুপে ৩৯২ জন, ‘সি’ গ্রুপে ৫৬ জন এবং ‘ডি’ গ্রুপে ১৩০ জন শিক্ষার্থী মেধাক্রম অনুযায়ী ভর্তির সুযোগ পাবে। ‘এ’ গ্রুপে মুক্তিযোদ্ধা কোটার ১২ জন এবং উপজাতি কোটার ০৪ জন, ‘বি’ গ্রুপে মুক্তিযোদ্ধা কোটার ২১ জন এবং উপজাতি কোটার ৭ জন, ‘সি’ গ্রুপে মুক্তিযোদ্ধা কোটার ৩ জন এবং উপজাতি কোটার ১ জন এবং ‘ডি’ গ্রুপে মুক্তিযোদ্ধা কোটার ২ জন (বিজ্ঞান), ৩ জন (বাণিজ্য), ২ জন (মানবিক) এবং উপজাতি কোটার ১ জন (বিজ্ঞান), ১ জন (বাণিজ্য), ১ জন (মানবিক) শিক্ষার্থী মেধাক্রম অনুযায়ী ভর্তির সুযোগ পাবে।

শারীরিক প্রতিবন্ধী কোটায় উত্তীর্ণদের ভর্তির প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের সঙ্গে শাারীরিক প্রতিবন্ধীর প্রমাণপত্রসহ ভর্তির জন্য ১৮ জানুরায়ী ২০১৬ সকাল ১০.০০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ে উপস্থিত হতে হবে।

আসন খালি থাকা সাপেক্ষে পরবর্তী মেধাক্রম অনুসারে ভর্তি করা হবে।
মুক্তিযোদ্ধা কোটায় শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে সরকারী পরিপত্র অনুযায়ী (মুক্তিযোদ্ধার সন্তান অগ্রাধিকার পাবে) ভর্তি করা হবে।

ভর্তির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র:

১. এসএসসি এবং এইচএসসি’র মূল মার্কশিট এবং প্রত্যেকটির একটি করে সত্যায়িত কপি অবশ্যই সঙ্গে আনতে হবে, ২. টেলিটক বাংলাদেশ লিমিডেট থেকে ডাউনলোডকৃত প্রবেশপত্রের কপি, ৩. পাঁচ কপি পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি, ৪. নাগরিকত্ব সার্টিফিকেট/ জন্মনিবন্ধন/ পাসপোর্ট এর সত্যায়িত কপি, ৫.মুক্তিযোদ্ধা কোটার ভর্তিচ্ছু প্রার্থীদের পিতামাতার অনুকূলে সরকার কর্তৃক ইস্যুকৃত মুক্তিযোদ্ধা সার্টিফিকেট এবং প্রয়োজনে দাদা-দাদী, নানা-নানীর, সম্পর্কের সার্টিফিকেটের মূল কপি এবং সত্যায়িত কপি, ৬. উপজাতি প্রার্থীদের ক্ষেত্রে উপজাতিভিত্তিক প্রত্যয়নপত্রের মূল কপি ও সত্যায়িত কপি এবং ৭. প্রথম টার্মের ক্রেডিট আওয়ার ফিসহ অন্যান্য ফি-চার্জ বাবদ সকল গ্রুপের জন্য আনুমানিক ২২,০০০/- (বাইশ হাজার) টাকা ভর্তি হওয়ার জন্য সঙ্গে আনতে হবে। উপরে উল্লেখিত কাজগপত্র ব্যতীত কোন শিক্ষার্থীকে ভর্তির অনুমতি দেয়া হবে না।

About admin

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful