Templates by BIGtheme NET
Home / জাতীয় / দেশে পৌঁছেছে সোহেল রানার মরদেহ

দেশে পৌঁছেছে সোহেল রানার মরদেহ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : রাজধানীর বনানীর এফআর টাওয়ারে আগুন নেভানো ও লোকজনকে উদ্ধারের সময় আহত ফায়ার সার্ভিসের কর্মী সোহেল রানা সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। তার মরদেহ দেশে আনা হয়েছে।

সোমবার রাত ১০টা ৪০ মিনিটে সোহেল রানার মরদেহ বহনকারী বিমানটি হজরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অবতরণ করে। এ সময় ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে তাকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়।

মঙ্গলবার কিশোরগঞ্জের ইটনায় সোহেল রানাকে দাফন করার কথা রয়েছে।

সোমবার রাতে ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তরের ডিউটি অফিসার কামরুল ইসলাম রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে করে সোহেলের লাশ দেশে পৌঁছায়। এ সময় ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে বিমানবন্দরের ভেতরেই তাকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়। পরে লাশ সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল (সিএমএইচ) নেওয়া হয়। সকাল ১১টায় ফায়ার সার্ভিসের সদর দপ্তরে জানাজা হবে।’

গত ২৮ মার্চ রাজধানীর বনানীর এফআর টাওয়ারে ভয়াবহ আগুনে ২৬ জন নিহত এবং ৭১ জন আহত হন। ওই দিন কুর্মিটোলা ফায়ার স্টেশনের ফায়ারম্যান সোহেল রানা উঁচু মই (ল্যাডার) দিয়ে আগুন নেভানো ও আটকে পড়া ব্যক্তিদের উদ্ধারে কাজ করছিলেন।

ভবনে আটকে পড়া চার-পাঁচজনকে উদ্ধার করে একসঙ্গে নিচে নামানোর সময় ল্যাডারটি ওভারলোড দেখাচ্ছিল। ওভারলোড হলে সাধারণত ল্যাডার নিচে নামে না, স্বয়ংক্রিয়ভাবে লক হয়ে যায়। তাই ল্যাডারের ওজন কমাতে সোহেল নিজেই ল্যাডার বেয়ে নিচে নামছিলেন।

ল্যাডারের ওজন কমায় সেটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে চালু হয়ে যায়। এতে সোহেলের একটি পা ল্যাডারের ভেতরে ঢুকে যায়। এছাড়া তার শরীরের সেফটি বেল্টটি ল্যাডারে আটকে পেটে প্রচণ্ড চাপ লাগে।

গুরুতর আহত সোহেলকে উদ্ধার করে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) তার চিকিৎসা চলে। ৫ এপ্রিল উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে সিঙ্গাপুর নেওয়া হয়। সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

About Tareq Hossain

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful