Templates by BIGtheme NET
Home / শিক্ষা / কর্মসূচি অব্যাহত : আন্দোলনকারি শিক্ষকদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থার উদ্যোগ

কর্মসূচি অব্যাহত : আন্দোলনকারি শিক্ষকদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থার উদ্যোগ

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষকদের ৫টি সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত সহকারী শিক্ষক ঐক্যজোট শনিবার সারাদেশে পূর্ণ দিবস কর্মবিরতি পালন করেছে। এ ছাড়া আগামী ১৫ অক্টোবর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের কর্মসূচীও অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছে। জোটের প্রধান সমন্বয়ক মো: আতাউর রহমান নয়া দিগন্তকে জানান, প্রধান শিক্ষকের নিচের গ্রেডে সহকারী শিক্ষকদের বেতন স্কেল নির্ধারণসহ চার দফা দাবিতে সারাদেশের সহকারী শিক্ষকেরা কর্মবিরতি পালন অব্যাহত রেখেছেন। আগামী ১৫ অক্টোবর এ দাবিতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রতিকী অনশন পালন শেষে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে শান্তিপূর্ণ পদযাত্রার মাধ্যমে স্মারকলিপি পেশ করা হবে।

অপরদিকে, আন্দোলনরত সহকারি শিক্ষকদের একটি তালিকা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস থেকে ডিপিই’তে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে। সূত্র জানায়, এ তালিকায় সহকারি শিক্ষক ঐক্যজোটের ২৭ জন নেতৃস্থানীয় শিক্ষক নেতাদের নাম রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়া হতে পারে। শিগগিরই তাদের নামে কারণ দর্শানোর নোটিশ জারি হবে।

এদিকে, চলতি মাসের প্রথম সপ্তাহে ডিপিই’কে মন্ত্রণালয় থেকে নির্দেশ দেয়া হয়েছিল, উপজেলা পর্যায়ে শিক্ষক আন্দোলনে নেতৃত্বদানকারী শিক্ষকদের নামের তালিকা প্রণয়নের জন্য। সে নির্দেশনার আলোকে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস শিক্ষকদের আন্দোলন পরিস্থিতি নিয়ে ডিপিই’কে প্রতিবেদন দিয়েছে। ঐ নির্দেশনা জারির পর পরই প্রধান শিক্ষকদের সংগঠন এবং সহকারি শিক্ষকদের একাংশ (শাহীনুর আল আমিন নেতৃত্বাধীন ৪টি সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত সহকারি শিক্ষক ফেডারেশন) কর্ম বিরতিসহ সকল কর্মসূচি স্থগিতের ঘোষণা দেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এ সব শিক্ষক নেতারা বলেন, আন্দোলনরত শিক্ষকদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে এমন নির্দেশনার পর আন্দোলন থেকে সরে আসতে বাধ্য হয়েছেন শিক্ষকেরা।

এদিকে, সহকারি শিক্ষক ঐক্যজোটের প্রধান সমন্বয়ক মোঃ আতাউর রহমান বলেন, সহকারি শিক্ষকরা সরকার বিরোধী কোনো আন্দোলন করছেন না। প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা ও শিক্ষকদের ন্যায্য পাওনা আমলাতান্ত্রিক মারপ্যাচে বঞ্চিত করার প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। আমরা প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা বলার সুযোগ করে দেয়ার জন্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের (ডিপিই) মহাপরিচালকের অনুরোধ জানিয়েছি। একই দাবি আমরা আমাদের মন্ত্রী মহোদয়কেও জানিয়েছি। কিন্তু কোনো আশ্বাস পাচ্ছি না।

জানা গেছে, প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষক সমিতি, প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক সমাজ (আনিস গ্রুপ), প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক সমাজ (তপন কুমার-গ্রুপ), জাতীয় প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক ফাউন্ডেশন এবং প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক ফ্রন্ট সমন্বয়ে গঠিত বাংলাদেশ সহকারি শিক্ষক ঐক্যজোটভূক্ত সংগঠনের সমর্থক শিক্ষকরা কর্ম বিরতি পালন করেছেন।

জোটের প্রধান সমন্বয়ক মো: আতাউর রহমানের নেতৃত্বে সহকারি শিক্ষকদের একটি প্রতিনিধি দল গত বৃহস্পতিবার রাতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী এডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান ফিজারের সাথে তার সরকারি বাসভবনে প্রায় আড়াই ঘণ্টা বৈঠক করেন। বৈঠকে সহকারি শিক্ষক ঐক্যজোটকে কর্মবিরতি প্রত্যাহার করার জন্য অনুরোধ করেন মন্ত্রী। তাদের দাবির ব্যাপারে বেতন বৈষম্য দূরীকরণ সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিকে অবহিত করার আশ্বাস দেয়া হলেও শিক্ষক নেতারা প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাতের ব্যবস্থার দাবি জানান। এছাড়া ওই কমিটিতে কোনো সুরাহা না হলে কী হবে পাল্টা প্রশ্ন তোলেন বলে বৈঠক সূত্র জানিয়েছে। এ অবস্থায় সহকারী শিক্ষক নেতারা বৈঠক থেকে বেরিয়ে আসেন।

গতকাল দুপুরে মো: আতাউর রহমান নয়া দিগন্তকে বলেন, কোন আশ্বাস বা সমাধানের কোনো সুষ্পষ্ট নির্দেশনা না পেয়ে আমরা কর্মসূচি অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমাদের ঘোষিত সকল কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।

About admin

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful