Templates by BIGtheme NET
Home / খেলাধুলা / অস্ট্রেলিয়ার অভিজ্ঞতার সঙ্গে কিছু শিক্ষা

অস্ট্রেলিয়ার অভিজ্ঞতার সঙ্গে কিছু শিক্ষা

হার সব সময় লজ্জার। চারবার বিশ্বকাপ খেলা অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৫-০ গোলে হারেও কোনো গর্ব নেই। আছে কম গোলে হারের সান্ত্বনা এবং অভিজ্ঞতা, এটাই হবে বাংলাদেশ দলের সম্বল। তাই নিয়ে গতরাতে দেশে ফিরেছে বাংলাদেশ দল।

ফেরার পরই আবার নতুন চ্যালেঞ্জ, আগামী ৮ তারিখ শক্তিশালী জর্দানের মুখোমুখি হবে হোম ম্যাচে। তখন এই অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের অভিজ্ঞতা কাজে লাগবে বলে মনে করছেন বাংলাদেশ কোচ লোডউইক ডি ক্রুইফ, ‘আমাদের বাস্তবতা বুঝতে হবে, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের জন্য এটি ভালো ফল। অন্তত আমি তাই মনে করি। এশিয়ার সেরা দলের সঙ্গে বাংলাদেশের এই দলটি প্রথম খেলেছে। সুবাদে বড় ম্যাচে চাপটা কী জিনিস সেটা তারা বুঝেছে, যা পরের ম্যাচগুলোতে ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে।’ কোনো বাংলাদেশি অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জয়ের স্বপ্ন দেখেনি। তবে আশা করেছিল প্রথমার্ধে আরো ভালো খেলা, যতটা সম্ভব বল নিজেদের পায়ে রেখে অন্তত মাঝমাঠে খেলার চেষ্টা করবে। শুরুতে সবাই ডিফেন্সে দাঁড়িয়ে গিয়ে খেলার সুযোগ করে দিয়েছিল প্রতিপক্ষকে। তাতেই হয়েছে সর্বনাশ, ২৮ মিনিটে চার গোল হজম করে বাংলাদেশের ম্যাচ একরকম শেষ হয়ে গিয়েছিল। এই গোলবন্যার মধ্যে পড়ে গোলরক্ষক শহীদুল আলমও চোখে শর্ষে ফুল দেখছিলেন, ‘শুরুতে আমরা সবাই স্নায়ুচাপে ভুগছিলাম। একের পর এক গোল দেখে, বুঝে উঠতে পারছিলাম না। কী হচ্ছে এসব! ওরা এত দ্রুত পাসিং ফুটবল খেলছে, খেলা মন্থর করতে হবে। কিন্তু আমরা নিজেদের পায়ে বলই রাখতে পারছিলাম না। দ্বিতীয়ার্ধে গিয়ে এই সমস্যা কাটিয়ে উঠি আমরা।’ প্রথমার্ধের সেই ঝড়ের পর দ্বিতীয়ার্ধে হয়েছে মাত্র একটি গোল। দ্বিতীয়ার্ধে অবশ্য ডিফেন্স থেকে ওপরে উঠে তারা খেলার চেষ্টা করেছে। পাশাপাশি বাংলাদেশের এই গোলরক্ষকের কৃতিত্ব আছে, দুর্দান্ত কিছু সেভ করেছেন ফর্মে ফেরা শেখ জামাল গোলরক্ষক।

প্রথমার্ধের গোলের ধারা বজায় থাকলে তো কেলেঙ্কারি হয়ে যেত। একই দিনে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের অন্যান্য ম্যাচে দুর্বলের ওপর সবলের অত্যাচারের ভয়ংকর ছবি ফুটে উঠেছে। ভুটান যেমন ১৫ গোল খেয়েছে কাতারের বিপক্ষে, সংযুক্ত আরব আমিরাত ১০ গোল করেছে মালয়েশিয়ার জালে, কুয়েতের সঙ্গেও ৯ গোলে আত্মসমর্পণ করেছে মিয়ানমার। এসব দেখে কাজী সালাউদ্দিনও রুষ্ট নন, এশিয়ার সেরা দলের সঙ্গে তুলনামূলক বিশ্লেষণে গিয়ে বাফুফে সভাপতি বলছেন, ‘ফল খারাপ হয়নি। অস্ট্রেলিয়ার পেছনে কোটি কোটি টাকা ব্যয় হয় প্রতি মাসে। সেই তুলনায় আমার দলের পেছনে সামান্য খরচ করি। সবাই মিলে চেষ্টা করলে অবশ্যই একটা পর্যায়ে তুলে নেওয়া যাবে আমাদের ফুটবলকে।’

শুধু অর্থনৈতিক ফারাক নয়, খেলোয়াড়দের গুণগত মানেও আকাশ-পাতাল তফাত। অস্ট্রেলিয়া দলের বেশির ভাগই খেলে ইউরোপে আর বাংলাদেশি ফুটবলাররা বেড়ে ওঠে আন্তর্জাতিক অঙ্গন থেকে যোজন যোজন পিছিয়ে থাকা বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ খেলে। অধিনায়ক মামুনুল ইসলামের কাছে ফুটবলীয় পরিবেশের ফারাকটাও এই হারে বড় ভূমিকা রেখেছে, ‘এ রকম দ্রুতগতির মাঠে আমরা কখনো খেলিনি। মাঠের গতি ও অস্ট্রেলীয় খেলোয়াড়দের গতি মিলিয়ে যে ফুটবলটা তারা খেলেছে তার সঙ্গে তাল মেলাতে পারছিলাম না আমরা। তাই শুরুটা একদম বাজে হয়েছে। পরে চাপ সামলে খেলায় কিছুটা রক্ষা হয়েছে। এশিয়া-সেরার সঙ্গে খেলায় একটা লাভ হয়েছে, পরের ম্যাচগুলোয় আমাদের মধ্যে আর ভয় কাজ করবে না। আশা করি, জর্দানের ম্যাচে আমরা ভালো ফুটবল খেলব।’ আসলে ফুটবলারদের জন্য একটা ভালো মাঠও দিতে পারে না বাংলাদেশ। ঢাকায় একমাত্র বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামই ফুটবলের মূল আবাস। কিছুদিন আগে তা ধানক্ষেতে রূপ নিয়েছিল, এই দুরবস্থার মধ্যেই চলে ফুটবলের লালন-পালন। ফুটবলার তৈরিরও ভালো কোনো ব্যবস্থা নেই, বাফুফে একটা একাডেমি করলেও সেখানে মাঠ আর আবাসনের ব্যবস্থা বাদ দিলে আর কিছুই নেই। তারপর জাতীয় দলের জন্য বাফুফে একজন কোচ রেখেছে ‘দিনমজুরের’ মতো করে। চাকরির শুরু থেকেই এই ডাচ কোচের মান, আন্তরিকতা এবং পেশাদারিত্ব প্রশ্নের মুখে। অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে নিষিদ্ধ বাংলাদেশ কোচ লোডউইক ডি ক্রুইফের অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার মূল উদ্দেশ্যই ছিল নতুন চাকরি খোঁজা। যাওয়ার আগে গত ২৬ আগস্ট সকারুস ডটকমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ৪৫ বছর বয়সী এই কোচ বলেছেন, ‘আমি অস্ট্রেলিয়ায় কাজ করতে আগ্রহী। আমার শিক্ষা-অভিজ্ঞতা এবং ব্যাকগ্রাউন্ড দিয়ে অস্ট্রেলিয়া ফুটবল সিস্টেমের সঙ্গে পুরোপুরি মানিয়ে নিতে পারব আশা করি।’ সুতরাং নিজের দলের চেয়ে নতুন দল খোঁজ করাটাই ছিল তাঁর কাছে মুখ্য ব্যাপার।

এত কিছুর পরও জাতীয় দলের প্রথম অস্ট্রেলিয়া সফর মন্দ হয়নি। সেই অভিজ্ঞতা সামনের জর্দানের ম্যাচে কতটুকু কাজে লাগাতে পারে দেখা যাক।

About admin

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful